মঙ্গলবার , জানুয়ারি ২৩, ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

ডায়াবেটিস রোধ করে যেসব খাবার

আহমেদ শরীফ

বিশ্বের অন্য সব দেশের মতো বাংলাদেশেও আশংকাজনক হারে বেড়ে চলেছে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা। আপনিও  হয়তো টাইপ টু ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়েছেন বা ডায়াবেটিসের ঝুঁকিতে আছেন অথবা টাইপ ওয়ান ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করছেন।  পরিস্থিতি যা ই হোক, যেসব খাবার ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে পারে, সেগুলো সম্পর্কে জানা থাকা চাই আপনার-

 

১.     বাদাম: বাদাম খুবই ভালো এক খাবার। শরীরের জন্য খুব উপকারি ফ্যাট আছে এতে। এ ফ্যাট ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে।

২.      বীজ: বাদামের মতো অনেক বীজে ওমেগা থ্রি থাকে। সূর্যমূখীর বীজ বেশ ভালো। তার চেয়ে আরো ভালো মিষ্টি কুমড়ার বীজ। এসব বীজ ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে।

৩.     মাছ: প্রোটিনের খুব ভালো উৎস মাছ। ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য প্রোটিন খুব জরুরী। মাছে প্রচুর ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিড থাকে, যা শরীরের জন্য খুব উপকারি। ডায়াবেটিক রোগীরা মাছ ভাজার চেয়ে গ্রিল করে খেলে ভালো ফল পাবেন।

৪.     বেরি ফল: সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর ফল বলা হয় বেরিকে। টাইপ টু ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে শরীরে ইনসুলিন তৈরী করতে ভূমিকা রাখে বেরি। আর টাইপ ওয়ান ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে এ ফল। এতে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও আঁশও থাকে। কয়েক ধরণের বেরি ফল আছে। সেগুলোর মাঝে ব্লু বেরিকে বলা হয় সুপার ফুড। আমাদের দেশের জামও অনেকটা এ জাতীয় ফল।

৫.     শিম: ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য আঁশ খুব প্রয়োজনীয়। এক্ষেত্রে শিম খুব ভালো এক উৎস। এতে প্রোটিনও আছে অনেক। সপ্তাহে যে কোনো ধরণের শিম খেলে আপনার রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে  থাকবে।

৬.     ব্রকোলি: যদি প্রশ্ন করা হয় ডায়াবেটিসের জন্য সবচেয়ে আদর্শ সবজি কোনটি? তাহলে বলতে হয় ব্রকোলি। গাঢ় সবুজ রংয়ের ফুলকপির মতো দেখতে বিদেশী এই সবজিতে বিশেষ এক উপাদান থাকে, যা প্রাকৃতিকভাবে ডায়াবেটিসের বিরুদ্ধে লড়ে যায় ও ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে। হৃদরোগও প্রতিরোধ করে এটি। এতে ভিটামিন সি ও থাকে প্রচুর।

৭.      কেইল: বিশে^র সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর সবজি বলা হয় কেইলকে। আমেরিকা, ইউরোপে মূলত জন্মায় এই সবজি। সাধারণত সবুজ পাতার হয় এই সবজি। এটি  টাইপ টু ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে ও টাইপ ওয়ান ডায়াবেটিস রোগীর সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখে।

৮.     অ্যাভোকেডো : খুব পুষ্টিকর এক ফল অ্যাভোকেডো। এটি ব্লাড সুগার যেমন নিয়ন্ত্রণে রাখে, তেমনি  হৃদরোগের ঝুঁকিও কমায়।

৯.     গ্রিক ইয়োগার্ট: দই হজমের জন্য বেশ ভালো এক খাবার। গ্রিক ইয়োগার্ট এমন এক ধরণের দই যাতে ফ্যাটের পরিমাণ কম ও প্রোটিন বেশি থাকে। এ ধরণের দই টাইপ টু ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করে।

১০.   আপেল: বিশে^  ৭৫০০ জাতের আপেল চাষ করা হয়। পুষ্টিকর এই ফল হৃদরোগ কমায় ও রক্তের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণে রাখে।

১১.    পালং শাক: ডায়াবেটিসের জন্য পালং শাক বেশ উপকারি।

১২.    অ্যাসপারাগাস: আরেকটি খুব উপকারি সবজি হলো অ্যাসপারাগাস। অনেক রোগ প্রতিরোধ করে এটি। টাইপ টু ডায়াবেটিসও প্রতিরোধ করে অ্যাসপারাগাস।

১৩.   ডার্ক চকোলেট: গবেষণায় দেখা গেছে ডার্ক বা কালচে থরণেল চকোলেট হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখত্রে এই ডার্ক চকোলেট বেশ উপকারি।

এছাড়া, রসুন, মিষ্টি আলু, দারুচিনি, অলিভ অয়েলও ডায়াবেটিস প্রতিরোধে ভালো ভূমিকা রাখে।

তথ্যসূত্র: ডক্টর হেলথ ম্যাগ ডট কম

লিংক:

 

http://drhealthmag.com/20-foods-that-combat-diabetes/