বুধবার , সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

জামালপুরে সাজানো এসিড মামলায় বাদী ও ভিকটিম জেল হাজতে

স্টাফ করসপনডেন্ট
জামালপুরে সাজানো এসিড নিক্ষেপ মামলা করায় বাদী ও ভিটিমকে জেল হাজতে এবং আটককৃত বিবাদি মা-মেয়েকে জামিন দিয়েছে আদালত। জামালপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জৈষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম মোঃ ওয়াহেদুজ্জামান মঙ্গলবার বিকেলে এই আদেশ দেন।
গত ১৫ মার্চ রাতে জামালপুর পৌর এলাকার রশিদপুর গ্রামের দুদু মিয়ার পুত্র জামালপুর ভোকেশনাল টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের প্রথম বর্ষে ছাত্র মাহমুদুল হাসান মারুফ এসিড নিক্ষেপের শিকার হয়। এই ঘটনায় মারুফের পিতা বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় পাশর্^বর্তী গ্রামের চাঁন মিয়ার কন্যা ভাবনা আক্তার রিয়া ও স্ত্রী সুজেদা বেগমকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ রাতেই রিয়া ও তার মাকে গ্রেফতার করে পরের দিন আদালতে সোপর্দ করলে বিজ্ঞ বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।
এসিড হামলার শিকার মারুফের মুখমন্ডল দগ্ধ হয় এবং প্রথমে জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয় বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়। চিকিৎসা শেষে এক সপ্তাহ আগে মারুফ বাড়ি ফিরে আসে।
মঙ্গলবার মামলার বাদী ও ভিকটিমকে আদালতে হাজির করা হয়। ভিকটিমের মুখমন্ডলে প্রকৃত এসিডের ঝলসে যাওয়া ঘটনাটি সাজানো প্রতীয়মান হওয়ায় বিজ্ঞ বিচারক তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। একই সাথে মামলার বিবাদী রিয়া ও তার মাকে জামিনে মুক্তি দেন।
জেলা বারের একজন সিনিয়র আইনজীবী এড: শামসুল হক বলেন, বিজ্ঞ বিচারক মিথ্যা মামলার বাদী ও ভিকটিমকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এই আদেশের ফলে মিথ্যা মামলা দায়েরের প্রবনতা কমে যাবে।