মঙ্গলবার , অক্টোবর ১৫, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

সেনাবাহিনীতে চাকরী দেবার নামে অর্থ আত্মসাত, এক প্রতারককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪

শফিকুল ইসলাম, স্টাফ করসপনডেন্ট

সেনাবাহীনিতে চাকরী দেবার নাম করে লাখ লাখ টাকা আত্মসাতকারী প্রতারক চক্রের এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-১ জামালপুর ক্যাম্প।

র‌্যাব জামালপুরের কোম্পানি কমান্ডার পুলিশ সুপার মো: তোফায়েল আহমেদ মিয়া বুধবার রাতে সংবাদ সম্মেলনে জানান, সেনাবাহিনীতে চাকুরী দেবার নাম করে অর্থ আদায় করছে একটি প্রতারক চক্র এমন একটি অভিযোগ আসে আমাদের কাছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে কোম্পানীর স্কোয়াড কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার জোনাঈদ আফ্রাদ এবং সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ তফিকুল আলম এর নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল গোপন সূত্রের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে প্রযুক্তির সহায়তায় জানা যায় প্রতারক চক্রের ওই সদস্য ডিএমপি ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানাধীন খানটেক মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। পরে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে জামালপুর জেলার ইসলামপুর উপজেলার চিনারচর গ্রামের মো: ছাহের আলীর ছেলে অভিযুক্ত মোঃ মোশারফ হোসেন (৩৭) কে গ্রেফতার করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে মোঃ তোফায়েল আহমেদ মিয়া আরোও বলেন, যারা প্রতারনা করে সমাজের নিরীহ মানুষদের হয়রানি করে চাকুরী দেবার নাম করে প্রতারনা করে এবং ভূক্তভোগীদের কষ্টার্জিত অর্থ আত্মস্যাৎ করে তারা সমাজের শত্রু, এদের বিরুদ্ধে র‌্যাব সর্বদা সজাগ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত প্রতারক স্বীকার করেছে সে ১১ জনের নিকট থেকে টাকা নিয়েছে চাকরি দেরার নাম করে। আটককৃত প্রতারকচক্রের সদস্য জামালপুর, শেরপুর জেলাসহ বাংলাদেশের অনেক জেলা হতে বিভিন্ন আইনশৃংখলা বাহিনীতে চাকুরী দেবার নাম করে মানুষের নিকট হতে ৫ থেকে ১২ লক্ষ বা তারও অধিক পরিমানের টাকা আদায় করেছে। সে প্রতিটি আইন-শৃংখলা বাহিনীর পক্ষ হতে ভুক্তভোগীদের নিকট চাকুরী দেবার নাম করে ভূয়া নিয়োগপত্র প্রদান করত। আটককৃত অপরাধীর বিরুদ্ধে জামালপুর জেলার ইসলামপুর আদালতে একটি সিআর মামলাসহ ওয়ারেন্ট রয়েছে। এছাড়া আটককৃত অপরাধীর নিকট থেকে জানা গিয়েছে, তাদের একটি চক্র পরিকল্পিতভাবে প্রতারণা করত। প্রতারক চক্রটি অতি দ্রুতই বাংলাদেশ হতে অন্য দেশে যাবার প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

error: Content is protected !!