শনিবার , সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

রাজীবপুরে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

সহিজল ইসলাম, রাজীবপুর, কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলার মোহনগঞ্জ ইউনিয়নের পাটাধোয়া পাড়া গ্রামে সাত বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। শনিবার দিবাগত রাতে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। শিশুটি স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রতিবেশী সাকোয়াত হোসেন প্রলোভন দেখিয়ে সন্ধ্যারাতে শিশুটিকে তার ফাঁকা বাড়িতে ডেকে নিয়ে নির্যাতন করে। এ সময় শিশুটি চিৎকার করলে স্বজনরা তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. সেতু রয় বলেন, শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। শিশুটির রক্তক্ষরণ হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে জামালপুরে রেফার্ড করেছি। এদিকে ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে অভিযুক্ত সাকোয়াত হোসেন। সাকোয়াত মোহনগঞ্জ ইউনিয়ন আ’লীগের ৬নং ওয়ার্ড শাখার সাধারণ সম্পাদক। পলাতক অবস্থায় ঘটনাটি মিমাংসার জন্য স্থানীয় প্রাভাবশালী এক আ’লীগ নেতার মাধ্যমে তদবির করছে নির্যাতিত পরিবারটির সাথে। শিশুটির স্বজনরা সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, আমরা গবির মানুষ মাইয়াডার এত বড় ক্ষতি করল সাকোয়াত।এহন মাইনসেক দিয়া আমাগরে হুমকি দেয়, ট্যাকার লোভ দেহায় যাতে মামলা না করি। আমরা এর উপযুক্ত বিচার চাই। পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হবে কিনা জানতে চাইলে শিশুটির চাচা জহরুল বলেন, মামলা করতে চাই কিন্তুক ওরা ভয় দেহায়। আমার ভাতিজীর বাবা মা জামালপুরে আছে ওরা আসলেই মামলা করব। আজ রবিবার এ ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে রাজীবপুর-রৌমারী সার্কেলের দায়িত্বে থাকা এএসপি মাহফুজ রহমান বলেন, বিষয়টি শোনার পর আমি নিজেই রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে ঘটনার খোঁজ নিয়েছি ও ডাক্তারদের সাথে কথা বলেছি। এ বিষয়ে থানায় মামলা করা হবে বলেও জানান তিনি।

error: Content is protected !!