শনিবার , ডিসেম্বর ৭, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

অবৈধভাবে সড়কের গাছ কাটার প্রতিবাদে বিক্ষোভ, প্রতিবাদ সভা

সহিজল ইসলাম, রাজীবপুর, কুড়িগ্রাম
রাজীবপুর উপজেলার ডিসি সড়কের জীবন্ত গাছ অবৈধভাবে কাটার ঘটনায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।এ বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়ার ৫দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ এখনও কোন ব্যবস্থা গ্রহন করে নি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে।
ওই ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার (২৪ জুন) রাজীবপুর উপজেলার নাগরিক সমাজের উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে থানা মোড় চত্তরে প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে।এতে সতস্ফুর্তভাবে উপজেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সাধারণ মানুষ অংশগ্রহন করে। বিক্ষোভ মিছিল শেষে থানা মোড় চত্তরে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আজিবর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আতিয়ার রহমান সোহাগ, নাগরিক কমিটির সভাপতি মুরাদ হোসেন, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি আশরাফুল ইসলাম বাবু, ছাত্রলীগ সভাপতি সাইদুর রহমান প্রমুখ। প্রতিবাদ সভায় বক্তারা রাজীবপুর থানা পুলিশের সমালোচনা করে বলেন, জেলা পরিষদ সদস্য রাজিয়া সুলতানা (রেণু) ও তার স্বামী আব্দুস ছালাম অবৈধভাবে ডিসি সড়কের জীবন্ত গাছ কেটে নিলেও অভিযোগ দেওয়ার পরেও পুলিশ মামলা করছে না। সমাজের প্রভাবশালী হওয়ায় পুলিশ তাদের সুবিধা দিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী যেখানে গাছ লাগাতে উৎসাহ প্রদান করছেন সেখানে একজন জেলা পরিষদ সদস্য কিভাবে জীবন্ত গাছ অবৈধভাবে কেটে নেয় ? অতিদ্রুত গাছ কাটার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া না হলে আরও কঠোর কর্মসূচির ঘোষণা করা হবে বলেও জানান বক্তারা। এবিষয়ে জানতে চাইলে রাজীবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, ওই ঘটনায় একটি তদন্তটিম গঠন করা হয়েছে, তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলেই মামলা রেকর্ড করা হবে। কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মুহিবুল ইসলাম খানের সাথে মুঠোফোনে বিষয়টি নিয়ে কথা হলে তিনি বলেন, আমি আজকেই যোগদান করলাম এই জেলায়, বিষয়টি আমি জেনে ওসিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ায় জন্য বলব।
উল্লেখ, কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ থেকে রাজীবপুর – রৌমারী ডিসি সড়কের ১০০টি গাছ দরপত্রের মাধ্যমে স্বামী আব্দুস ছালাম ও মেয়ে শারমিন আক্তারের নামে কিনে নেয় জেলা পরিষদ সদস্য রাজিয়া সুলতানা (রেণু)। দরপত্রের বাইরে আরও ৫টি গাছ কেটে নিলে স্থানীয়দের নজরে আসে বিষয়টি। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ একটি গাছ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। অতিরিক্ত গাছ কাটার বিষয়ে গত ১৯ জুন থানায় লিখিত অভিযোগ করেন সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি আশরাফুল ইসলাম বাবু।
error: Content is protected !!