মঙ্গলবার , আগস্ট ২০, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

বকশীগঞ্জে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মীদের চাকরী জাতীয়করণের দাবি


স্টাফ করসপনডেন্ট, বকশীগঞ্জ
১৩ জুন জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেট পেশ করা হয়েছে। এবার ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট ঘোষনা করা হয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষনার পর জামালপুরের বকশীগঞ্জে প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে। অনেকেই বলছেন ভাল বাজেট, অনেকেই এই বাজেটে জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন।
বাজেটে আগামি ২০৩০ সালের মধ্যে ৩ কোটি মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষনার পর আশার আলো দেখতে শুরু করেছেন বকশীগঞ্জে কর্মরত ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির ১৭০০ কর্মী। তারা প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বাজেটকে স্বাগত জানিয়েছেন। এই বাজেটের আলোকে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির সকল সদস্যদের চাকুরী স্থায়ী করা সহ জাতীয়করণের দাবি জানান ন্যাশনাল সার্ভিসের কর্মীরা। উপজেলা যুব উন্নয়ন দপ্তরের আওতাধীন ন্যাশনাল সার্ভিসের এসব কর্মীরা তাদের চাকরী স্থায়ীকরণের মাধ্যমে বাজেট বাস্তবায়নের দাবি জানান। বকশীগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত ন্যাশনাল সার্ভিসের কর্মী আনিছুর রহমান বলেন, দুই বছরের জন্য আমাদের নিয়োগ দেয়া হলেও আমাদের ইচ্ছার প্রতিফলন হচ্ছে না তাই এই কর্মসূচির মেয়াদ বৃদ্ধি করা ও চাকরী জাতীয়করণ করা হলে দেশে বেকারের সংখ্যা অনেকাংশে কমে যাবে। এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলা ন্যাশনাল সার্ভিস উন্নয়ন ঐক্য পরিষদের সভাপতি হাসানুজ্জামান সজিব জানান, আমরা প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। যেহেতেু ২০৩০ সালের মধ্যে কর্মসংস্থানের পরিধি বাড়ানো হবে সেহেতু আমরা যারা ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচিতে কাজ করছি আমাদের জাতীয়করণ করার জোর দাবি জানাচ্ছি। তিনি এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
উল্লেখ্য, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের যুব অধিদপ্তরের অর্থায়নে জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ উপজেলায় স্থানীয় বেকার যুবক-যুবতীদের কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি চালু করা হয়। এই কর্মসূচির আওতায় কর্মীরা দুই বছর পর্যন্ত প্রতি মাসে ৬ হাজার টাকা করে ভাতা পাবেন। ইতোমধ্যে এই কর্মসূচির কর্মীদের চাকুরী স্থায়ী করা সহ বিভিন্ন দাবি বাস্তবায়নের জন্য মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মীরা।

error: Content is protected !!