বুধবার , নভেম্বর ১৩, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

স্বামী হত্যার পর স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে অপহরণ ও গুমের অভিযোগ তুললেন দেওয়ানগঞ্জে গুলিতে নিহত যুবলীগ নেতা খালেকের স্ত্রী

 স্টাফ করসপনডেন্ট

ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে স্বামীকে গুলি করে হত্যার পর স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে অপহরণ ও গুমের অভিযোগ তুলেছেন জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে গুলিতে নিহত যুবলীগ নেতা খালেকের স্ত্রী।

আজ জামালপুর শহরের একটি বাসায় সংবাদ সম্মেলন করে নিহত যুবলীগ নেতা আব্দুল খালেকের স্ত্রী তারজিনা আক্তার লাকী অভিযোগ করেন, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে সরকার দলীয় চেয়ারম্যান প্রাথী আবুল কালাম আজাদের সাথে   নিহত খালেকের দীর্ঘদিন যাবত পারিবারিক বিরোধ ছিল। এসব কারণে তার স্বামী রাজনীতিতেও নিস্ক্রিয় ছিলেন। গত ২৮ ফ্রেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার রাতে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের লোকজন তার স্বামীকে ডেকে নিয়ে যায়। এর কয়েকঘন্টা পর গুলিতে স্বামীর মৃত্যু সংবাদ শুনে তিনি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। খালেকের মৃত্যুর পর তার মেয়ে নবম শ্রেণীর ছাত্রী নাজমুজ শোভা রাখি মনিকে কালাম চেয়ারম্যানের লোকজন উঠিয়ে নিয়ে যায়। এখন পর্যন্ত শোভার খোঁজ মিলেনি। তিনি অভিযোগ করেন স্বামী হত্যা মামলায় বাদী হতে চাইলে পুলিশ তার মামলা গ্রহণ না করে নিহতের ভাতিজাকে বাদী করে উল্টো তার  আত্নীয়য়স্বজনকে হত্যা মামলায় ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে। তিনি স্বামীর প্রকৃত হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও মেয়েকে উদ্ধারের দাবি জানান।

error: Content is protected !!