সোমবার , ডিসেম্বর ১০, ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

সরিষাবাড়ীতে প্রশাসনের নিকট ভূমিহীনদের পূনর্বাসন দাবী

স্টাফ করসপনডেন্ট, সরিষাবাড়ী
জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে অর্ধ শতাধিক নিঃস্ব ভূমিহীনরা পূনর্বাসনের দাবীতে প্রশাসনের নিকট স্মারকলিপি দিয়েছে। পাট কোম্পানীর শ্রমিক পরিবার তাদের নিজ নামে জমি ও আবাসন চেয়ে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সরিষাবাড়ী প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এ স্মারকলিপি প্রদান করে। বৃহস্পতিবার মহন লাল চৌহান, বিজয় রবি দাস, ইউসুফসহ অসহায় পরিবারের সদস্যরা এ স্মারকলিপি দেন।
স্মারকলিপি এবং ভূমিহীন শ্রমিক পরিবার সুত্রে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী পৌরসভার প্রানকেন্দ্রে আরামনগর বাজারের দক্ষিণ পাশে ধানাটা মৌজায় বাংলাদেশ জুট কর্পোরেশনের অধীন বিজেএমসি পাট কোম্পানী গড়ে উঠে। সেই কোম্পানীর মালিক অর্ধ শতাধিক রবি দাস পরিবারের সদস্যদের শ্রমিক হিসেবে নিয়োগ দিয়ে স্থায়ী ভাবে বসতি গড়ে দেয়। ইংরেজ শাসনামলের পূর্ব থেকে পাট কোম্পানীতে কাজ করে পরিবার পরিজন নিয়ে ধর্মীয় উৎসব পালনসহ জীবন যাপন করে আসছিল। সম্প্রতি সরকার ওই পাট কোম্পানীটি বিলুপ্ত ঘোষনা করে কে এইচ বি ফাইবারস লিঃ নামের প্রতিষ্ঠানের নিকট বিক্রি করে দেয়। এ নিয়ে রবি দাস ও শ্রমিক পরিবারের লোকজন উচ্ছেদের আশংকায় পড়েন। বর্তমানে পৈতৃক সূত্রে কলোনিতে অর্ধ শতাধিক রবি দাস ও শ্রমিক পরিবার অবস্থান করছে বলে জানাগেছে। এ নিয়ে তৎকালীন সংসদ সদস্য ডাঃ মুরাদ হাসান, তেজগাও কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রশীদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সরিষাবাড়ী থানার ওসিসহ স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যাক্তি বিলুপ্ত পাট কোম্পানীর ত্রেতা কে এইচ বি ফাইবারস লিঃ এর পরিচালক দলিল উদ্দিনের সাথে সমঝোতা বৈঠক করেন। বৈঠকের সিদ্ধান্তে রবি দাস ও শ্রমিক পরিবারের লোকজন কে নির্বিঘ্নে বসবাস করার মৌখিক আশ্বাস প্রদানসহ উচ্ছেদ করা হবে না বলে সিদ্ধান্ত ঘোষনা করা হয়। সম্প্রতি ওই আশ্বাস উপেক্ষা করে একটি স্বার্থান্বেষী মহল রবি দাস ও শ্রমিক পরিবারের লোকজনকে উচ্ছেদের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ কারনে অসহায় দরিদ্র নিঃস্ব ভূমিহীন পরিবারের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে বলে ইসরফ জাহান গেদুসহ শ্রমিক পরিবারের সদস্যরা জানান।
এ ব্যাপারে বাংলাদেশ রবি দাস উন্নয়ন পরিষদ (বিআরডিসি) সরিষাবাড়ী উপজেলা শাখার সভাপতি খোকন রবি দাস ও সাধারন সম্পাদক বিজয় রবি দাস বলেন, ইংরেজ শাসনামলের পূর্ব থেকে পাট কোম্পানীর শ্রমিক হিসেবে রবি দাস ও শ্রমিক পরিবার বসবাস করছে। ওই কলোনীতে বসবাসকারীদের নামে জমি ও আবাসন বরাদ্দ করে পূনর্বাসনের দাবী জানাচ্ছি প্রশাসনের কাছে। বাংলাদেশ রবি দাস উন্নয়ন পরিষদ (বিআরডিসি) জামালপুর জেলা শাখার আহবায়ক মিলন রবি দাস বলেন, বিজেসি কলোনীতে বসবাসকারীদের পূনর্বাসন ছাড়া কেউ উচ্ছেদ করতে গেলে তা প্রতিহত করা হবে। আমরা প্রশাসনের কাছে উচ্ছেদের আগে পূনর্বাসন চাই। এ ব্যাপারে কে এইচ বি ফাইবারস লিঃ এর ব্যাবস্থাপক আতিকুর রহমান অতিক বলেন, কোম্পানীর ক্রয়কৃত জমি উদ্ধার করতে রবি দাস পরিবারের জন্য প্রায় ২৫/৩০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে নগদা নামক এলাকায় জমি ক্রয়সহ বসবাসের উপযোগী সব কিছু করা হলেও তারা কোম্পানীর জায়গা ছাড়তে চাচ্ছেন না। সরিষাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলামের মুঠোফোনে কল দিলে তিনি রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।