রবিবার , ডিসেম্বর ৮, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

সরিষাবাড়ী হাসপাতালে রোগি মৃত্যুর পর রেফার : পরিবারের সদস্যরা ডাক্তারের ওপর চড়াও


সিনিয়র স্টাফ করসপনডেন্ট, সরিষাবাড়ী
জামালপুরের সরিষাবাড়ী হাসপাতালে জবেদা বেগম (৫০) নামে শ্বাসকষ্টের রোগি বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর পর রেফার করার অভিযোগ উঠেছে। এতে রোগির পরিবারের সদস্যরাসহ স্থানীয় লোকজন ডাক্তারের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হয়ে চড়াও হয় এবং হাসপাতাল কমপ্লেক্সে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয়। সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।
পরিবারের সদস্যরা জানান, উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের চর হাটবাড়ী গ্রামের মৃত জহির উদ্দিন মন্ডলের মেয়ে জবেদা বেগম। তিনি উপজেলা পরিষদ এলাকা সাতপোয়া গ্রামে মেয়ের বাসায় বেড়াতে আসেন। এখানে হঠাৎ করে জবেদা বেগমের ডায়াবেটিকস ও শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। পরে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। এ সময় ডাক্তার না পেয়ে চিৎকার করতে থাকে পরিবারের সদস্যরা। এ সময় কর্মরত ডাক্তার আরিফুল ইসলাম বাসায় ঘুমাচ্ছিলেন। রোগি হাসপাতালে আনার প্রায় আড়াই ঘন্টা পর সকাল ১০টার দিকে বিনা চিকিৎসায় মারা যান তিনি। পরে রোগির লোকজনের ডাকচিৎকার শুনে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মমতাজ উদ্দিন এসে মৃত রোগিকে তড়িঘড়ি করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। এ মৃত রোগির রেফার করায় প্রতিবাদ করেন মেয়ের জামাই শাহিনুল ইসলাম শাহিন। তার প্রতিবাদের পর ইসিজি করা হলে রোগির মৃত্যু নিশ্চিত হন ডাক্তার। পরে ডাক্তারের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে চড়াও হয় রোগির পরিবারের লোকজন। এক পর্যায়ে হাসপাতাল কমপ্লেক্সে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মমতাজ উদ্দিন জানান, রোগি জবেদা বেগমের রেফার করার ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর ইসিজি করা হয়। এ ইসিজি রিপোর্টে তার মৃত্যু নিশ্চিত হন তিনি।

error: Content is protected !!