মঙ্গলবার , আগস্ট ২০, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

ইসলামপুরে মুক্তিযোদ্ধা গফুর প্রধানের উপর হামলাকারীদের শাস্তির দাবীতে প্রতিবাদ সভা


লিয়াকত হোসাইন লায়ন, স্টাফ করসপনডেন্ট, ইসলামপুর
জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলায় আব্দুল গফুর প্রধান নামে এক গেরিলা মুক্তিযোদ্ধাকে মারধরের ঘটনায় প্রতিবাদ সভা করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও এলাকাবাসী।
রবিবার সন্ধ্যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের গংগাপাড়া গ্রামে সেন্টার বাজারে এই প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গফুর প্রধানকে মারধরের ঘটনায় সদর ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান শাহীনের পদত্যাগও দাবি করেন এলাকাবাসীসহ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। জানাগেছে, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুর রহমান ফাগু প্রধানের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জিয়াউল হক জিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম, পৌর মেয়র আব্দুল কাদের সেক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শফিকুল আলম দুলাল, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা কৃষিবিদ মঞ্জুরুল মোরর্শেদ হ্যাপী, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সরদার মাকছুদুর রহমান লাভলু, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরদার জাকিউল হক, সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি জিয়াউল হক জুয়েল, আ’লীগ নেতা রিয়াজুল ইসলাম সেলিম, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম ইঞ্জু, নাজমুল হাসান বিপ্লব, রফিকুল ইসলাম প্রমুখ। এ সময় বক্তারা হারুনুর রশিদ চৌধুরী ও মতিউর রহমান চৌধুরী রাজাকার পরিবারের স্বজনরা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে লাঞ্চিত করায় ইউপি চেয়ারম্যান শাহীনের আওয়ামী লীগের পদ থেকে পদত্যাগ দাবী করেন। এছাড়া ওই ঘটনার সঠিক বিচার না হওয়া পর্যন্ত চেয়ারম্যান শাহীনের পরিবারের লোকজনকে এলাকায় জুতা পায়ে দিয়ে চলা ফেরা করতে দেওয়া হবে না মর্মেও বক্তারা হুশিয়ার করেন। উল্লেখ্য, গত ৩১ আগস্ট গঙ্গাপাড়া সেন্টার বাজারে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গফুর প্রধান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ইসলামপুর থানা শান্তি কমিটির সভাপতি কুক্ষ্যাত রাজাকার মতিয়ার রহমান চৌধুরী পরিবারের অত্যাচার নির্যাতনের ভূমিকা তুলে ধরেন। তার ওই বক্তব্যে ক্ষুব্ধ হয়ে রাজাকার মতিয়ার রহমান চৌধুরী পরিবারের সদস্যরা আব্দুল গফুর প্রধানকে গত শনিবার সকালে রাস্তা থেকে তুলে ইসলামপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান চৌধুরী শাহীনের বাড়ির সামনে নিয়ে তাকে বেধরক পিটিয়ে আহত করে।

error: Content is protected !!