শুক্রবার , নভেম্বর ১৫, ২০১৯
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

সরিষাবাড়ীতে খামার যান্ত্রিকীকরনের মাধ্যমে ফসল উৎপাদনে প্রদর্শনী ও মাঠ দিবস পালিত

স্টাফ করসপনডেন্ট, সরিষাবাড়ী
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলা কৃষি অফিসের উদ্দ্যোগে খামার যান্ত্রিকীকরনের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্প (২য় পর্যায়) এর আওতায় ধানের চারা রোপনের জন্য “রাইস ট্রান্সপ্লান্টার” মেশিন প্রদর্শনী ও মাঠ দিবস পালিত হয়েছে। সোমবার ৪নং আওনা ইউনিয়নের দৌলতপুর ব্লকে কুষকদের জন্য এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
কৃষি অফিস সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার ৪নং আওনা ইউপির দৌলতপুর ব্লকে কৃষক হেলাল উদ্দিনের ২৪ শতাংশ জমিতে ট্রের উপর উৎপন্ন বিনা-১১ ধানের চারা “রাইস ট্রান্সপ্লান্টার” মেশিন দিয়ে ৪৫ মিনিটে রোপন করে উপস্থিত চাষীদের নিকট উপস্থাপন করা হয়। এক একর জমিতে ধানের চারা রোপন করতে সময় লাগবে তিন ঘন্টা এবং খরচ হবে প্রায় ১ হাজার ৫শত টাকা। বর্তমান বাজারে একই পরিমান জমিতে প্রায় ৩ হাজার টাকা খরচ এবং সময় বেশী লাগে বলে কৃষকরা জানান। প্রদর্শনী ও মাঠ দিবসে প্রধান অতিথি ছিলেন জামালপুর কৃষি অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (প্লান প্রটেকশন) সাইফুল আজম। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি অফিসার আব্দুল্লা আল মামুন, কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তা সাবরিনা আফরিন, উম্মে তামিমা, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা আঃ কাদের, রিজুয়ান প্রমূখ। এই মেশিন ব্যবহার করে ধানের চারা রোপন করলে সময় এবং অর্থ দুই সাশ্রয় হবে বলে জানানো হয়। কাজেই কৃষকদের খামার যান্ত্রিকীকরনের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন বৃদ্ধির পরামর্শ দেন। উপজেলা কৃষি অফিসার আব্দুল্লা আল মামুন বলেন, এই মেশিনের মাধ্যমে ধানের চারা রোপন করলে স্বল্প সময়ে, কম খরচে, লাইন করে, আলো-বাতাস, নিরানী ও সেচের সুবিধা রয়েছে।

error: Content is protected !!