শনিবার , আগস্ট ১৮, ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

জামালপুরে নাগরিক সমাজের উদ্যোগে পরিচ্ছন্নতা অভিযান

স্টাফ করসপনডেন্ট
একটি নিরাপদ ও পরিচ্ছন্নতা নগর প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে নবগঠিত জামালপুর সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে ধারাবাহিক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে শুক্রবার সকালে রাস্তা সংস্কার ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযান উদ্বোধন করেন সচেতন নাগরিক সমাজ জামালপুর এর উপদেষ্টা পরিবেশ কর্মী জাহাঙ্গীর সেলিম। অভিযান পরিচালনা কাজে সহায়তা করে জামালপুর পৌরসভা।


সকাল ১০টায় স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ রেজাউল করিম হীরা’র বাসার সামনে থেকে অভিযান শুরু করে কাচারিপাড়া ফকিরপাড়া মোড় পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশের অবর্জনা পরিস্কার এবং খানাখন্দগুলো ভরাটের কাজ শেষ করা হয়। রাবিসের অভাবে পরিপূর্ণভাবে গর্ত ভরাট না করতে পারলেও অভিযানে অংশ নেয়া পৌরসভার প্রতিনিধিরা আগামী শনিবারের মধ্যে রাবিস ফেলে যানবাহন চলাচলের উপয়োগী করার আশ্বাস দেন। অভিযানে আরও অংশ নেন সচেতন নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক মোক্তাদিরু হোসেন সেলিম, সদস্য সচিব ডাঃ মনিরুজ্জামান খান, সদস্য মনোয়ারা খানম, মাসুম, মিজানুর রহমান বিদ্যুৎ, তারা, মোরাদ খান, হীরা, পিয়াস, রাজু, নিকেল, হৃদয়, জাকির হোসেন রাসেল, যোবায়ের, অনিকহ অর্ধশতাধিক নাগনিক সমাজের সদস্যগণ। পৌরসভার একটি বড় গাড়িসহ পরিচ্ছনতা কাজে সহায়তা করতে অংশ নেন পৌরসভার প্রতিনিধি হিসাব রক্ষক আসাদুজ্জামান, মঞ্জু এবং একদল পরিচ্ছন্ন কর্মী। এ সময় দুইপাশের বাড়ির বৌ ঝিরা বেরিয়ে পরিচ্ছন্নতাকারীদের অভিনন্দন জানান। তারা যেখানে সেখানে আবর্জনা না ফেলার অঙ্গীকারও করেন। সচেতন নাগরিক সমাজের এই মহতী উদ্যোগের প্রতি সমর্থন ও ধন্যবাদ জানিয়ে জামালপুর পৌরসভার মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি বলেন, নাগরিকরা সচেতন হলে পৌরসভার ওপর চাপ অনেকাংশে কমে যাবে। তিনি আশ্বাস দিয়ে বলেন প্রতিটি বাড়ির ময়লা আবর্জনাগুলো নিদিষ্ট স্থানে রাখলে পৌরসভার গাড়ি এসে যথাসময়ে নিয়ে যাবে। প্রতিটি পাড়ায় মহল্লায় এ ধরণের নাগরিক সমাজের সংগঠন গড়ে উঠলে এবং সামাজিক কাজ শুরু করলে সত্যিই সমাজটা বদলে যাবে।


উল্লেখ, এর আগের সপ্তাহে সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত গণসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। সমাবেশের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মেয়র সাহেবের বক্তব্যের প্রতিফলন শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে কাচারিপাড়া থেকে কাচারি শাহী জামে মসজিদের লিং রোড, সংস্কার ও ড্রেন পরিষ্কার কাজ শুরু হয়েছে।