মঙ্গলবার , ডিসেম্বর ১১, ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

মেলান্দহে বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের ঘটনায় সংঘর্ষ ॥ আহত ৩


শাহীন আলম, স্টাফ করসপনডেন্ট, মেলান্দহ
জামালপুরের মেলান্দহে বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বালিকাকে (১৮) ধর্ষণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ৩ জন আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (৪ জুলাই) সন্ধ্যায়। আহতদের মেলান্দহ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলো নলছিয়া বানাবান্ধা গ্রামের আনছার কমান্ডার নূরুন্নবী (৩৮), ফরিদুল ইসলাম (২৫) এবং নূরুল ইসলাম (২৩)।
জানাগেছে, প্রতিবেশী আব্দুল্লাহর বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বালিকাকে পার্শ্ববর্তী এক স্কুল শিক্ষকের সাথে বিয়ের প্রলোভনে একবছর যাবৎ ধর্ষণ করে আসছিল সিরাজুল ইসলামের পুত্র ৫ সন্তানের জনক নজরুল ইসলাম (৪৭)। এতে ওই প্রতিবন্ধী ৬ মাসের অন্ত:সত্বা হয়। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হবার পর কয়েকদফা দেনদরবার হয়। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে নজরুল ইসলাম প্রতিবন্ধী বালিকাকে শেরপুরে নিয়ে সন্তান নষ্ট করে ফেলে। এ নিয়ে সর্বশেষ বুধবার বিকেলে মাহমুদপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর তত্ত্বাবধানে সালিশের আয়োজন করা হয়। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে সালিশ ভেস্তে যায়।
ইতোমধ্যেই ধর্ষক নূরুল ইসলামের ভাই আনছার কমান্ডার নূরুন্নবী জামালপুর থেকে ভাড়াটে আ:রাজ্জাক এবং জনৈক হেলিমের নেতৃত্বে এলাকায় মহড়া দিয়ে গ্রামবাসীকে গালিগালাজ করে। গ্রামবাসী ভাড়াটেদের গণধোলাই দেয়। এমতাবস্থায় গুন্ডাদের রক্ষার জন্য তারা এগিয়ে আসলে গ্রামবাসি তাদেরও পিটুনি দিলে তার আহত হয়। ইউপি মেম্বার হানিফ উদ্দিন, ধলু মিয়া ও কৃষক লীগ নেতা আ: রাজ্জাক জানান, ধর্ষক অপরাধের কথা স্বীকার করে দেড় লাখ টাকায় রফাদফারও চেষ্টা করেছে। বর্তমানে ধর্ষক পলাতক আছে।