সোমবার , জুন ২৫, ২০১৮

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যা যা থাকছে

 স্পোর্টস ডেস্ক

রাত পোহালেই “গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ” খ্যাত বিশ্বকাপ ফুটবলের পর্দা উঠছে। বিশ্বকাপ জ্বরে আক্রান্ত যেখানে সারাবিশ্ব সেখানে তার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বরাবরের মত এবারেও জাঁকজমকপূর্ণ হবে বলে জানিয়েছে ফিফা। সারাবিশ্বের ফুটবলের মহাতারকাগণের উপস্থিতি এবারের আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে আর জাঁকজমক করে তুলবে।

রাশিয়া বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে সাজানো হয়েছে নাচ, গান এবং কিংবদন্তী ফুটবলারদের জমকালো উপস্থিতির মাধ্যমে। ফিফার সূত্রমতে, তিন মহাতারকা রবি উইলিয়াম, রাশিয়ান শিল্পী আইদা গারফুলিনা ও ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী কিংবদন্তী রোনালদো উপস্থিত থাকবেন। রবি উইলিয়ামস ও আইদা বিশ্বকাপের থিম সং ” লিভ ইট আপ” দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করবেন। এছাড়া থাকছে দুর্দান্ত আতশবাজির খেলা।

এবারের অনুষ্ঠান রাশিয়ার লুঝনিকি স্টেডিয়ামে আয়োজিত হবে যেখানে ৮০ হাজার দর্শক উপস্থিত থাকবেন।

পপ শিল্পী রবি উইলিয়ামস জানান, রাশিয়ায় পারফরম্যান্স করার সুযোগ পেয়ে আমি। রোমাঞ্চিত খুবই খুশি লাগছে। রোমাঞ্চিত হচ্ছি এমন একটা জায়গায় পারফরম্যান্স করতে পেরে। ক্যারিয়ারে অনেক জায়গায় পারফর্ম করেছি। কিন্তু এবার? ৮০ হাজার দর্শকের সামনে বিশ্বকাপ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গাইব। এটা আমার জন্য অনেক বড় ব্যাপার। এর মাধ্যমে আমার শৈশবের স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে।

তিনি আরো জানান, রাশিয়ায় মনে রাখার মতই একটি আয়োজন হতে যাচ্ছে। সকল ফুটবল ও গানের ভক্তদের স্টেডিয়ামে আসার এবং টিভি অন করে রাখার অনুরোধ জানাচ্ছি।

রাশিয়ান গায়িকা আইদা জানান, আমি কখনই ভাবিনি এরকম বিশাল একটি আয়োজনের অংশ আমি হতে পারবো তাও আবার নিজ দেশ রাশিয়ায়!

ফেনোমেনন খ্যাত রোনালদো জানান, বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ সবসময়ই অন্যরকম। একজন খেলোয়ার বা ফুটবল সমর্থক যাই হোন না কেন আমরা সবাই ৪ বছর ধরে এই আয়োজনের অপেক্ষায় থাকি। কেউ জানে না, আগামি ৪ সপ্তাহ কি হতে যাচ্ছে? কিন্তু সকলেই জানে এটা মনে রাখার মত অসাধারন কিছু ঘটতে যাচ্ছে।

তিনি আরো জানান, স্বাগতিকদের জন্য অবশ্যই এটা (বিশ্বকাপ আয়োজন) আবেগের বিষয়। কারণ তারা দীর্ঘদিন যাবত কঠোর পরিশ্রম করেছে এটাকে সুন্দরভাবে আয়োজনের জন্য। ৪ বছর আগে ব্রাজিলে হওয়া বিশ্বকাপের কথা আমার মনে আছে। আমি অত্যন্ত আনন্দ বোধ করছি সেই অনুভূতির কথা রাশিয়ানদেরও জানাতে পারবো।

সূত্রঃ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম