বৃহস্পতিবার , সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৮
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

না ফেরার দেশে অভিনেত্রী রানী সরকার


বিনোদন ডেস্ক
জাতীয় পুরস্কার বিজয়ী ষাট ও সত্তর দশকের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রানী সরকার আর নেই। শনিবার (৭ জুলাই দিবাগত রাত) ভোর ৪ টার দিকে রাজধানী একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি মারা গেছেন বলে জানা গেছে। এছাড়াও পিত্তথলির পাথর, বাতজ্বর, জটিল কোলেলিথিয়েসিস রোগসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন এই অভিনেত্রী।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান খবরটি নিশ্চিত করে বললেন, ‘তাকে হারানোটা আমাদের বিশাল ক্ষতি। গুণী এ অভিনেত্রীর ইচ্ছে ছিল, বিএফডিসিতে যেন তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। আমরা তাকে সেভাবেই শ্রদ্ধা জানাবো।’

তিনি জানান, আজ শানিবার (৭ জুলাই) বেলা সোয়া ২টায় বিএফডিসিতে জানাজার আয়োজন করা হচ্ছে। বাদ আসর আজিমপুর কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হবে।

রানী সরকারের আসল নাম মোসাম্মৎ আমিরুন নেসা খানম। জন্ম সাতক্ষীরা জেলার কালীগঞ্জ থানার সোনাতলা গ্রামে।
১৯৫৮ সালে রানী সরকারের চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়। প্রথম ছবি হলো এ জে কারদার পরিচালিত ‘দূর হ্যায় সুখ কা গাঁও’। ১৯৬২ সালে বিখ্যাত চলচ্চিত্রকার এহতেশামুর রহমান পরিচালিত উর্দু চলচ্চিত্র ‘চান্দা’তে অভিনয় করেন।
‘দূর হ্যায় সুখ কা গাঁও’, ‘চান্দা’, ‘তালাশ’র মতো জনপ্রিয় উর্দু সিনেমায় কাজ করার পাশাপাশি রানী সরকার সমৃদ্ধ করেছেন বাংলা সিনেমাকে। ‘কাচের দেয়াল’, ‘বেহুলা’, ‘আনোয়ারা’, ‘চোখের জল’, ‘নাচের পুতুল’ তার অভিনীত জনপ্রিয় বাংলা সিনেমা।
মোহাম্মাদপুরস্থ শেখেরটেক এলাকায় তার ভাইয়ের বউ ও ভাইয়ের দুই মেয়েসহ দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছিলেন তিনি।
২০১৬ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি। একই বছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে ২০ লাখ টাকা অর্থ সহায়তা দেন।

সূত্রঃ বাংলা ট্রিবিউন